সোমবার, ২২শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

সরিষাবাড়ীতে কুকুরের কামড়ে আহত হয়ে ৪ জন হাসপাতালে ভর্তি

সরিষাবাড়ী (জামালপুর) প্রতিনিধি: জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে কুকুরের কামড়ে আহত হয়ে ৪ জন কিশোর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। হঠাৎ করে কুকুরের কামড়ে আক্রান্তের ঘটনায় আতস্ক বিরাজ করছে ঐ এলাকায়।

সোমবার (৮ এপ্রিল) উপজেলার মহাদান ইউনিয়নে বিভিন্ন এলাকায় সন্ধা থেকে রাত ১২ পর্যন্ত এসব রোগী কুকুরের কামড়ে আক্রান্ত হয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছেন। এদের মধ্যে তিনজনের শরীর থেকে মাংসে কামড়ে নিয়ে গেছে পাগলা কুকুর।কুকুরে কামড়ে আক্রান্তরা হলো- উপজেলার মহাদান ইউনিয়নের বিলবালিয়া গ্রামের আরাফাত (১৫), নয়ন মিয়া (১৬), বড়সড়া গ্রামের আবদুল লতিফ (৪৫) ও খাগুড়িয়া গ্রামের সাদিক মিয়া (১৩)।

হাসপাতাল ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, আরাফাত ও নয়ন বিলবালিয়া জামে মসজিদ থেকে নামাজ শেষ করে বের হয়। এসময় মসজিদের মাঠে অবস্থান করা একটি পাগলা কুকুর দৌড়ে এসে আরাফাতকে কামড়ে দেয়। এসময় বন্ধু নয়ন তাকে উদ্ধার করতে আসলে পাগলা কুকুরটি তাকেও কামড়ে দেয়। অপরদিকে আবদুল লতিফ বাড়ীর পাশে রাস্তা দিয়ে হাঁটতে ছিলো। এসময় একটি কুকুর দৌড়ে এসে তাকে এলোপাতাড়ি কামড়ে দেয়। আর সাদিক মিয়া বাড়ী থেকে বের হয়ে রাস্তায় বের হলে তাকেও কুকুরের কামড়ে দেয়। এদেরকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি নিয়ে আসে।

এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক নাঈম মিয়া বলেন, কুকুরে কামড় নিয়ে রাতে চারজন হাসপাতালে আসেন চিকিৎসা নিতে। তাদের মধ্যে তিনজন কিশোর একজন বৃদ্ধ। এদের মধ্যে তিনজনকে শরীর থেকে কামড় দিয়ে মাংস তুলে নিয়েছে কুকুর। প্রাথমিক চিকিৎসাসহ সবাইকে জলাতঙ্কের ভ্যাকসিন দিয়েছি।

সংবাদের আলো বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো।

----- সংশ্লিষ্ট সংবাদ -----