মঙ্গলবার, ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

মানিকগঞ্জে ১২ ঘণ্টায় কুকুরের কামড়ে আহত ৮৮ জন

সংবাদের আলো ডেস্ক: মানিকগঞ্জ সদর উপজেলায় বেওয়ারিশ কুকুরের কামড়ে নারী ও শিশুসহ ৮৮ জন আহত হয়েছে। আহত সকলেই জেলা সদর হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন। তবে আহতদের মধ্যে ৪৫ জনের জখম বেশি হয়েছে। হঠাৎ করেই বেওয়ারিশ কুকুরের কামড়ে জনমনে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে কুকুরের কামড়ে আক্রান্ত ব্যক্তির সংখ্যাও বাড়তে পারে বলে শঙ্কা রয়েছে।রবিবার (০৭ জুলাই) সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মানিকগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে কুকুরের কামড়ে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা নিয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালের জরুরি বিভাগের দায়িত্বরত চিকিৎসক ডা. ফারজানা ইয়াসমিন।

মানিকগঞ্জ সদর উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ আজিজুল হক বলেন, কুকুর নিয়ে মহামান্য হাইকোর্টের অবজারভেশন থাকায় রাস্তার কুকুর নিধনের সুযোগ নেই। তবে পৌর কর্তৃপক্ষ বললে আমরা বেওয়ারিশ কুকুর ধারে ভ্যাকসিনের আওতায় আনার ব্যবস্থা গ্রহণ করবা। পরিস্থিতি দেখে মনে হচ্ছে র‌্যাভিস ভাইরাসে আক্রান্ত কুকুর এসব মানুষকে কামড়েছে। সম্ভব হলে আক্রান্ত স্থানে খারযুক্ত সাবান দিয়ে ১৫ থেকে ২০ মিনিট সময় ধরে ভালো করে ঘষে ঘষে ধুতে হবে। এখন যত দ্রুত সম্ভব টিকা নিতে হবে।এ বিষয়ে সিভিল সার্জন ডা: মোকছেদুল মোমিন বলেন, প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। রাস্তা দিয়ে চলাচল করার সময় সাধারণ জনগণকে অবশ্যই সতর্ক হয়ে চলাচল করতে হবে। আর বেওয়ারিশ কুকুরের কামড় দিলেই দ্রুত সম্ভব হাসপাতালে গিয়ে টিকা নেওয়ার পরামর্শ দেন তিনি।পৌরসভার মেয়র মো. রমজান আলী বলেন, কুকুরের বিষয়টি আমি ইতোপূর্বে জেলা আইনশৃঙ্খলা মিটিংয়ে উপস্থাপন করা হয়েছে। বেওয়ারিশ কুকুরের বিষয়ে সিভিল সার্জন অফিস ও প্রাণিসম্পদ অফিস পৌরসভার কাছে সহযোগিতা চাইলে করা হবে বলে তিনি জানান।

সংবাদের আলো বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো।

----- সংশ্লিষ্ট সংবাদ -----

এই সপ্তাহের পাঠকপ্রিয়