সোমবার, ২২শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

ভূমিধস ও বন্যায় ব্রাজিলে নিহত ৫৬

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ল্যাটিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলের দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য রিও গ্র্যান্ডে দো সুল কয়েকদিনের ভারী বৃষ্টিপাত ও বন্যায় তলিয়ে গেছে। রাজ্যটিতে প্রবল বর্ষণে এখন পর্যন্ত ৫৬ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং আরও ৬৭ জন নিখোঁজ রয়েছেন। সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ব্রাজিলের দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্যে কয়েকদিনের ভারী বৃষ্টির কারণে সৃষ্ট ব্যাপক বন্যা ও ভূমিধসে ৫৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। রিও গ্র্যান্ডে দো সুলে আরও ৬৭ জন নিখোঁজ রয়েছেন। গত শনিবার ঝড়-বৃষ্টি শুরু হওয়ার পর থেকে প্রায় ২৫ হাজার বাসিন্দা তাদের বাড়িঘর ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন। কমপক্ষে ৫ লাখ মানুষ বিদ্যুৎ এবং বিশুদ্ধ পানি ছাড়াই থাকতে বাধ্য হচ্ছেন।

এমনকি ব্রাজিলের এই অঞ্চলে আরও বৃষ্টিপাত হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। মূলত গড় তাপমাত্রা, উচ্চ আর্দ্রতা এবং শক্তিশালী বাতাসের বিরল সংমিশ্রণের কারণে লাতিন আমেরিকার এই দেশটির এই অঞ্চলে চরম আবহাওয়ার সৃষ্টি হয়েছে। রাজ্যের ৪৯৭টি শহরের অর্ধেকেরও বেশি শহর ঝড়ের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, বেশ কয়েকটি এলাকায় রাস্তা ও সেতু ধ্বংস হয়ে গেছে। ঝড়ের কারণে বেন্টো গনসালভেস শহরের কাছে ভূমিধস এবং একটি জলবিদ্যুৎ বাঁধ ভেঙে যায়, যাতে ৩০ জন নিহত হয়।

এছাড়া পানির স্তর বৃদ্ধির কারণে এলাকার একটি দ্বিতীয় বাঁধও ভেঙে পড়ার ঝুঁকিতে রয়েছে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।’ আঞ্চলিক রাজধানী পোর্তো আলেগ্রেতে গুয়াইবা নদীর পানি তীর উপচে পড়েছে এবং রাস্তায় বন্যার সৃষ্টি করেছে। এতে করে আশপাশের কিছু এলাকাও তলিয়ে গেছে। পোর্তো আলেগ্রের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ‘অনির্দিষ্টকালের’ জন্য সমস্ত ফ্লাইট স্থগিত করা হয়েছে। একজন বাসিন্দা বলেছেন, বৃষ্টি ও বন্যায় যে ক্ষতিটি হয়েছে তা ‘হৃদয়বিদারক’। মারিয়া লুইজা বলেন, ‘আমি এই এলাকায় থাকি, তাই এখানে যারা বাস করে তাদের প্রত্যেকের জন্য আমি দুঃখিত। এটা খুবই দুঃখজনক যে, এই সব হচ্ছে।’

সংবাদের আলো বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো।

----- সংশ্লিষ্ট সংবাদ -----