সোমবার, ২২শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

বেলকুচির জনগন বদি ফকিরের কালো টাকার বিরুদ্ধে জেগে উঠেছে – ইঞ্জিনিয়ার আমিনুল ইসলাম

নিজস্ব প্রতিবেদক: আসন্ন বেলকুচি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মোটরসাইকেল প্রতিকের প্রার্থী বদিউজ্জামান ফকিরের কালো টাকার বিরুদ্ধে জেগে উঠেছে সর্বস্তরের জনগন। উপজেলা নির্বাচন উপলক্ষ্যে ট্রাকে লোড দিয়ে বস্তাভর্তি টাকা নিয়ে এসেছে। ভোটারদের টাকার বিনিময়ে জিম্মি করে প্রচারণায় নামিয়েছেন সরলপ্রাণ মানুষদের। রোববার বিকেলে বেলকুচি পৌরসভা নির্বাচন পরিচালনা কমিটির উদ্যোগে শেরনগর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে নির্বাচনী জনসভায় এমন অভিযোগ করেছন বেলকুচি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান (দোয়াত কলম) প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার আমিনুল ইসলাম সরকার। এ সময় তিনি আরও বলেন বালু দস্যূ বদি ফকির মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে নির্বাচনী মাঠে অস্তিস্থিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টির জন্য কালো টাকা নিয়ে লড়ে যাচ্ছেন। কাল টাকার বস্তা নিয়ে ভোটারদের বাড়ি বাড়ি যাচ্ছে।

এর বিরুদ্ধে সাধারন সরল প্রাণ মানুষ জেগে উঠেছে। তারা কালো টাকা নয়, এলাকায় উন্নয়ন ও শান্তির  জন্যে দোয়াত কলমে ভোট দিতে একমত হয়েছে। বালু ও মাদক সমাট্র বদি ফকির এলাকায় ইতোমধ্যে লাল কার্ড পেয়েছেন। এজন্য সাধারন ভোটারদের কালো টাকা দিয়ে ভোট কেনার জন্য মরিয়া হয়েছে। তবে ফকির পরিবার বস্তা ভর্তি টাকা নিয়ে ভোটের মাঠে লড়ছে। আমি আমার সততা ও দক্ষতা নিয়ে ভোটারদের মন জয় করতে লড়ে যাচ্ছি । যা আজকের জনসভা জনসমুদ্রে পরিনত হয়েছে। তাই বেলকুচি উপজেলার ৬টি ইউনিয়ন ও পৌরসভার সকল জনপ্রতিনিধি এক হয়ে দেয়াত কলমের পক্ষে মাঠে নেমেছে। তিনি আরও বলেন, বদি ফকিরের কালো টাকার উৎস খতিয়ে বের করতে হবে। নোটে ভোট নয়, ভোট হবে জনতার ভালবাসায়। এজন্য বেলকুচি উপজেলা ও পৌরবাসি ভোটের দিনের অপেক্ষায় রয়েছে। তারা দক্ষ দেখে পক্ষ নিয়েছে।

তবে সন্ত্রাসী ফকির বাহিনী ভোটের মাঠে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে ইতোমধ্যে দোয়াত কলমের সমর্থকদের মারপিট, ভাঙচুর ও হামলা করছে। এছাড়া মামলা হামলা করে সরলপ্রাণ ভোটারদের মনবল ভাঙতে কাজ করছে বদি ফকিরের নেতৃত্বে সন্ত্রাসী বাহিনী। সুষ্ঠ ভোটের স্বার্থে প্রশাসনের পক্ষ থেকে দ্রুত তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি জানাই। নির্বাচনী জনসভায় সভাপতিত্ব করেন বেলকুচি পৌরসভা নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহব্বায়ক আলহাজ আব্দুল মজিদ খান। প্রধান অতিথি ছিলেন দোয়াত কলমের প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার আমিনুল ইসলাম।

এসময় বেলকুচি উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা দেলখোশ আলী প্রামানিক, উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী আকন্দ, বেলকুচি উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্মসাধারন সম্পাদক আতাউর রহমান রতন,  জেলা পরিষদ সদস্য আমিনুল ইসলাম আল আমিন, বড়ধুল ইউপি চেয়ারম্যান আছির উদ্দিন মোল্লা, রাজাপুর ইউপি চেয়ারম্যান সনিয়া সবুর আকন্দ, বেলকুচি সদর ইউপি চেয়ারম্যান মির্জা সোলায়মান হোসেন, ধুকুরিয়াবেড়া ইউপি চেয়ারম্যান  হেলাল উদ্দিন,  বেলকুচি উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক জিএস সেলিম সরকার, পৌর কাউন্সিলর জুলফিকার মাহমুদ শিপন, মোন্নাফ মোল্লা, মাহবুবুল আজাদ তারেক, ফজলুর রহমান ফজল, ইসমাইল সরকার, বেলকুচি উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি  রবিন হাসান রকি, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি এম আক্তার হামিদ ও সাধারন সম্পাদক সৌরভ আহম্মেদ উৎস প্রমুখ।

সংবাদের আলো বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো।

----- সংশ্লিষ্ট সংবাদ -----