রবিবার, ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

বেনাপোল বন্দরে ভারত থেকে মিথ্যা ঘোষণায় পণ্য আমদানি, ১৫ লক্ষ টাকার শুল্ক ফাঁকির চেষ্টা

স্টাফ রিপোর্টার: যশোরের বেনাপোল স্থল বন্দর দিয়ে মিথ্যা ঘোষণায় ভারত থকে আমদানি করা সামুদ্রিক মাছের ট্রাক থেকে বিপুল পরিমাণ চিংড়ি মাছ জব্দ করেছেন বেনাপোল কাস্টমস কর্মকর্তরা। বিকেলে বেনাপোল স্থল বন্দরের ৩১ নম্বর ট্রান্সশিপমেন্ট ইয়ার্ড থেকে চিংড়ি মাছ গুলো জব্দ করা হয়। জব্দকৃত চিংড়িমাছের ওজন ৪৭০ কেজি। এই চালানের মাধ্যমে আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান ১৫ লাখ টাকার রাজস্ব ফাঁকি দিতে চেয়েছিল বলে কাস্টমস সূত্রে জানা গেছে।

ভারত থেকে আমদানি করা মাছের চালানটির আমদানিকারক খুলনার বুলবুল ট্রেডার্স। আর পণ্য খালাসের দায়িত্বে ছিল বেনাপোলের সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট শহিদ ট্রেডিং করপোরেশন। মাছের চালানটিতে ঘোষণা দেওয়া হয় যে, ভারত থেকে আমদানি করা ৮৭ কার্টুন মাছের নিট ওজন ৫ হাজার ১৭ কেজি। কিন্ত কাস্টমস কর্তৃপক্ষ ১১ প্যাকেট মাছ বেশি পায়। যে প্যাকেটগুলোতে ৪৭০ কেজি চিংড়ি মাছ ছিল। আর এর মাধ্যমে ১৫ লাখ টাকার রাজস্ব ফাঁকি দেওয়া হয়েছে।

বেনাপোলের কাস্টমস কমিশনার মো. আব্দুল হাকিম জানান, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ভারত থেকে আমদানি করা একটি সামুদ্রিক মাছের চালানের ট্রাকে তল্লাশি করা হয়। তল্লাশি করে ঘোষণার অতিরিক্ত ১১ প্যাকেটে ৪৭০ কেজি বড় আকারের চিংড়ি মাছ পাওয়া যায়। আমদানিকারকের বিন লক করা হবে। এ ছাড়া সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টের লাইসেন্সও বাতিল করা হবে বলে জানান তিনি।

সংবাদের আলো বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো।

----- সংশ্লিষ্ট সংবাদ -----

এই সপ্তাহের পাঠকপ্রিয়