সোমবার, ২২শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

পেট ব্যথা নিয়ে হাসপাতালে যুবক, বের করা হলো মোবাইল ফোন

সংবাদের আলো ডেস্ক : প্রচণ্ড পেট ব্যথা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন এক যুবক। পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে চিকিৎসকরা তার পেটে আস্তো একটি মোবাইল ফোন দেখতে পায়। বেঙ্গালুরুর ভিক্টোরিয়া হাসপাতালে তার অস্ত্রোপচার করে সেই মোবাইল ফোন বের করেন চিকিৎসকরা। ভারতের কর্ণাটকের শিবমোগা কেন্দ্রীয় কারাগারে এক এক কারাবন্দির সঙ্গে এমন ঘটনা ঘটেছে। বর্তমানে ওই কয়েদি সুস্থ রয়েছে।

হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, খুনের দায়ে যাবজ্জীবন সাজা পাওয়া ৩৮ বছরের পরশুরাম কোনো উপায়ে একটি মোবাইল ফোন যোগার করেন। কিন্তু কারাগারের রুটিন তল্লাশির সময় মহাবিপদে পড়েন তিনি। কারারক্ষীদের থেকে বাঁচতে ফোনটিকে অন্য কোথায় লুকানোর বদলে গিলে ফেলেন এই কয়েদি।’

কোনো ঝুঁকি না-নিয়ে ওই বন্দিকে বেঙ্গালুরুতে পাঠানো হয় গত ১ এপ্রিল। ভর্তি করা হয় পরশুরামকে ভিক্টোরিয়া হাসপাতালে। ভালোভাবে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে চিকিৎসক বুঝতে পারেন, পেটের ভেতরে আস্ত একটা মোবাইল ফোন রয়েছে। পরে গত ২৫ এপ্রিল পরশুরামের অস্ত্রোপচার হয় ভিক্টোরিয়া হাসপাতালে। দীর্ঘ ৭৫ মিনিট ধরে অপারেশন শেষ মোবাইলটি বের করা হয়। হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, চীনা ফোনটি আকারে ছোট হওয়ায় সেটি খাদ্যনালি দিয়ে পরশুরামের পাকস্থলীতে চলে গিয়েছিল। প্রায় ২০ দিন মোবাইল ফোনটি পেটের মধ্যে ছিল।’

সংবাদের আলো বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো।

----- সংশ্লিষ্ট সংবাদ -----