শুক্রবার, ১৯শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

খেলার মাঠের দাবীতে বেনাপোল-যশোর মহাসড়কে “মানববন্ধন”

মো: সেলিম রেজা তাজ, প্রতিনিধি: দেশকে মাদকমুক্ত ও সমাজকে অবক্ষয় থেকে রক্ষা করতে খেলাধুলার কোনো বিকল্প নেই। তরুণ প্রজন্মকে মাদকাসক্তি, জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদ এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের আসক্তি থেকে দূরে রাখতে যুবসমাজকে খেলাধুলায় মনোনিবেশ ঘটাতে হবে। এমন একটি বিষয় উঠে এসেছে বেনাপোল চেকপোষ্টে বেনাপোল-যশোর মহাসড়কে “মানববন্ধন” কর্মসূচির মাধ্যমে। খেলার মাঠের দাবীতে বেনাপোল পৌরসভার সীমান্তবর্তী ওয়ার্ড ৯নং ওয়ার্ডবাসী এ “মানববন্ধন” কর্মসূচি’র আয়োজন করে। এতে নেতৃত্ব দেন ৯নং ওয়ার্ড কমিশনার-মো.কামাল হোসেন।  প্রায় ১কিলোমিটার ব্যাপি এই মানববন্ধনে এলাকার শতশত বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ অংশ নেন।

এ সময় নেতৃবৃন্দের মধ্যে যাদের নাম পাওয়া যায় তারা হলেন-  সুলতান আহম্মেদ বাবু(১নং ওয়ার্ড কমিশনার),গিয়াস মেম্বর,আশাদুজ্জামান আশা(ব্যবসায়ী), ইদ্রিস আলী ইদু(ব্যবসায়ী) ইয়াকুব আলী(ব্যবসায়ী),জাফর হোসেন,আরমান হোসেন,শামীম হোসেন, গণেশ, মাষ্টার মহিদুল, শামীম,জামাল,আরমান, পলাশ হোসেন, সোবহান,বি এম কবির,জুলু,রওশোন,নকী মোল্লা সহ ৯নং ওয়ার্ডবাসী। জনস্রোতের এই মানববন্ধনে অংশ নেওয়া এলাকার মানুষের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে ৪৮ ঘন্টার আল্টিমেটাম দিয়ে কমিশনার কামাল হোসেন বলেন- “সমাজ থেকে কুসংস্কার, অন্যায়-অত্যাচার দূরীকরণে যেমন শিক্ষার বিকল্প নেই, তেমনি মাদকমুক্ত সমাজ গঠনে খেলাধুলার কোনো বিকল্প নেই। লেখাপড়ার পাশাপাশি যুবকদেরকে খেলাধুলা করার সুযোগ করে দিতে হবে।

দেশে মাদক একটি সামাজিক ব্যাধিতে পরিণত হয়েছে। যুবসমাজকে মাদক থেকে দূরে রাখতে খেলাধুলার কোনো বিকল্প নেই। যুবক ও কিশোর-কিশোরীদের খেলাধুলার মধ্যে রাখতে হবে। খেলাধুলা করলে যেমন শরীর ভালো থাকে, তেমনি মনও ভালো থাকে।  খেলাধুলা মানুষের মনকে সজীব করে তোলে। খেলাধুলা সমাজের অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড থেকে সমাজকে দূরে রাখে। তাই সুস্থভাবে জীবনযাপন করতে খেলাধুলার বিকল্প নেই। খেলাধুলার সুন্দর পরিবেশ রাখতে এলাকায় খেলার মাঠ একটি প্রয়োজনীয় বিষয়”।

  “আমার ওয়ার্ডে স্থলবন্দরের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক চেকপোষ্ট অবস্থিত। বিনোদন এবং খেলাধুলার জন্য ব্যবহৃত প্রায় ১৫ বিঘা জমির উপর বেনাপোল পৌর কর্তৃপক্ষ জোরপূর্বক পৌর বাসটার্মিনাল নির্মান করে। ২০১৩ সালের ২৩ আগষ্ট নির্মিত টার্মিনালটি উদ্বোধণ ঘোষনা করেন তৎকালীন নৌ-পরিবহন মন্ত্রী মোঃ শাজাহান খান। ক্রিকেট,ফুটবলের পাশাপাশি গ্রামের বিভিন্ন ঐতিহ্যের খেলাধুলা মাঠটিতে অনুষ্ঠিত হতো,দুর-দুরান্ত থেকে আসা এ সব খেলায় অংশ নিতেন দেশের নামি-দামী খেলোয়াড়রা। আর এসব খেলাধুলা উপভোগ করতেন এলাকার মানুষ সহ যাত্রাপথে অপেক্ষায় থাকা পাসপোর্ট যাত্রী সকল”।

“দীঘ ১০টি বছর খেলার মাঠের অভাবে ৯নং ওয়ার্ডের বেশকিছু নামি-দামী ক্রিকেট এবং ফুটবল খেলয়াড় আজ নিয়মিত অনুশীলণে অনাগ্রহী হয়ে পড়েছে,পাশাপাশি খেলাপ্রেমী মানুষ বঞ্চিত হচ্ছেন বিনোদন থেকে। অনুরোধ জানিয়ে বিষয়টি নিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা,বেনাপোল পৌরকর্তৃপক্ষ,শার্শা উপজেলা প্রশাসন এবং মান্যবর সাংসদ শেখ আফিল উদ্দিন এর হস্তক্ষেপ কামনা করে,মাদকমুক্ত এবং উত্তম সমাজ গঠনে ৯নং ওয়ার্ডবাসীর প্রত্যাশা পূরণে কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন, এটিই প্রত্যাশা করি”।  আল্টিমেটামে কাজ না হলে পরবর্তীতে বৃহৎ কর্মর্সূচি’র ঘোষণা দেওয়া হবে বলে কমিশনার কামাল হোসেন সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

সংবাদের আলো বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো।

----- সংশ্লিষ্ট সংবাদ -----