রবিবার, ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

আনার হত্যা: খুনিদের সাথে যোগাযোগ ছিল আ. লীগ নেতা বাবুর

নিজস্ব প্রতিবেদক: ভারতের পশ্চিমবঙ্গে খুন হওয়া ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য এমপি আনোয়ারুল আজীম আনারকে নিয়ে ক্রমশ রহস্যের জাল বৃদ্ধি পাচ্ছে। এ ঘটনায় শনিবার রাজধানীর সায়েদাবাদ এলাকা থেকে আটক করা হয় ঝিনাইদহ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক কাজী কামাল আহমেদ বাবুকে। সংসদ সদস্য আনারের অপহরণ ও হত্যাকান্ডের বিষয় বিস্তারিত জানতে ঝিনাইদহ আওয়ামী লীগের এই নেতা খুনিদের সঙ্গে দেখা করেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। গত ১৭ মে বাবু ফরিদপুরের ঢাকা-ভাঙ্গা এক্সপ্রেসওয়েতে একটি গাড়ির মধ্যে আমানুল্লাহর সঙ্গে দেখা করেন এবং যেখানে অপরাধ সংঘটিত হয়েছে সেখানকার ছবি দেখেন এবং হত্যাকাণ্ডে কত টাকা হাতবদল হয়েছে তা নিয়ে কথা বলেন।রোববার (৯ জুন’) ঢাকার একটি আদালতে পুলিশের দাখিল করা তদন্তের অগ্রগতি সংক্রান্ত প্রতিবেদনে এ কথা জানানো হয়েছে। ওই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, বাবু খুনের আগের দিন রাত সাড়ে ১০ টায় ঘটনার অন্যতম আসামী আমানুল্লাহ ওরফে শিমুল ভূঁইয়ার সঙ্গে হোয়াটসঅ্যাপে কথোপকথন হয় বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করেন মামলার তদন্তকারী বিভাগের জ্যেষ্ঠ সহকারী কমিশনার (ডিবি) মাহফুজুর রহমান। উল্লেখ্য, বাবু এই হত্যাকাণ্ডের অন্যতম পরিকল্পনাকারী আক্তারুজ্জামানের মামাতো ভাই। এছাড়া এর আগে এর আগে আমানুল্লাহ আদালতে স্বীকার করেন, ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য হত্যাকাণ্ডে যারা অংশ নিয়েছিলেন তাদের সমন্বয়কারী ছিলেন তিনি।শনিবার (৮ জুন’) গ্রেপ্তারের পর কামাল হোসেন বাবুর ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। এনিয়ে এনিয়ে এই ঘটনায় চার জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃত অপর তিন আসামি শিলাস্তি রহমান, আমানুল্লাহ ও তানভীর ভূঁইয়া স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন এবং কারাগারে রয়েছেন। এছাড়াও জিহাদ হাওলাদার ও সিয়াম হোসেনকে গ্রেপ্তার করেছে পশ্চিমবঙ্গ সিআইডি।’ নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ডিবির একজন শীর্ষ কর্মকর্তা বলেন, ‘আক্তারুজ্জামান ও আমানউল্লাহর সঙ্গে অনলাইনে হওয়া বেশিরভাগ কথোপকথন বাবু মুছে ফেলেছেন।অপহরণ ও হত্যা পরিকল্পনার সঙ্গে তিনি জড়িত ছিলেন বলে আমাদের কাছে প্রমাণ রয়েছে। তবে আক্তারুজ্জামান যিনি এমপি আনারের সঙ্গে স্বর্ণ ও মাদক চোরাচালান চক্র চালাতেন, তিনি যুক্তরাষ্ট্রে আছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। প্রসঙ্গত, এমপি আনার গত ১২ মে কলকাতায় গিয়ে বন্ধু গোপাল বিশ্বাসের বাড়িতে এক রাত থাকেন। পরের দিন তিনি ডাক্তারের কাছে যাওয়ার কথা বলে বের হন। গত ২২ মে ভারত ও বাংলাদেশের পুলিশ জানায়, এমপি খুন হয়েছেন। এদিকে, পশ্চিমবঙ্গ সিআইডি গতকাল দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার কাশীপুর এলাকার একটি খালের পাড় থেকে এমপি আনারের সন্দেহভাজন হাড় উদ্ধার করেছে। ১৪ দিনের রিমান্ডে থাকা সিয়ামকে জিজ্ঞাসাবাদ করে সিআইডি কর্মকর্তারা এই হাড় উদ্ধার করেন বলে জানিয়েছে তারা।

সংবাদের আলো বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো।

----- সংশ্লিষ্ট সংবাদ -----

এই সপ্তাহের পাঠকপ্রিয়